Thursday, 16 August 2018


বঙ্গোপসাগরে ট্রলারডুবি,১৮ দিনেও খোঁজ নেই ১০ জেলের

লক্ষ্মীপুর,৮আগস্ট,ফোকাস বাংলা নিউজ:বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরতে গিয়ে ট্রলার ডুবে লক্ষ্মীপুরের কমলনগর উপজেলার ১০ জেলে ১৮ দিন ধরে নিখোঁজ রয়েছেন। এ নিয়ে তাদের পরিবারের সদস্যরা চরম উদ্বেগ-উৎকণ্ঠায় রয়েছেন।গত ২১ জুলাই বরগুনার নিশানবাড়ি ঘাট থেকে দক্ষিণ-পশ্চিমে বঙ্গোপসাগরে ভারত-বাংলাদেশ নৌ-সীমানার অদূরে মাছ ধরার সময় ঝড়ের কবলে পড়ে ট্রলারসহ তারা নিখোঁজ হন। নিখোঁজ জেলেরা হলেন-কমলনগর উপজেলার খায়েরহাট এলাকার আবু কালাম প্রকাশ আবু মাঝি (৫০), তার ছেলে জায়েদ হোসেন (২৫), মেয়ের জামাতা শরিফ হোসেন (২৭), অপর জেলে নুরুল ইসলাম (৬৭), মো. সেলিম (৩৬), মাইন উদ্দিন (৩২), আবুল খায়ের (৬০), মো. সালাহ উদ্দিন (৩০), মো. কালাম (৪০) ও তোরাবগঞ্জ এলাকার মো. স্বপন (২৫)।নিখোঁজ আবু মাঝির ছেলে মো. রাসেল জানান, তার বাবা আবু মাঝি বরগুনার নিশানবাড়ি ঘাটের আবুল কালামের মালিকানাধীন এমবি মুহাম্মদ হোসেন-২ ট্রলারের মাঝি ছিলেন। ওই ট্রলারে তাদের এলাকার ১২ জনসহ ১৭ জন জেলে নিয়ে গত ১৮ জুলাই নিশানবাড়ি ঘাট থেকে সাগরে মাছ ধরতে যান। ঘাট থেকে দক্ষিণ-পশ্চিম দিকে বঙ্গোপসাগরের ভারত-বাংলাদেশের নৌ-সীমানার কাছাকাছি তারা জাল ফেলে মাছ ধরছিলেন। ২১ জুলাই শনিবার সকালে তারা ঝড়ের কবলে পড়েন। এরপর থেকে তার বাবাসহ ট্রলারে থাকা ১০ জেলে ও ট্রলারের অপর সাত জেলে নিখোঁজ রয়েছেন। বিভিন্ন স্থানে খোঁজ নিয়েও ট্রলারটির সন্ধান পাওয়া যায়নি। ট্রলার মালিক আবুল কালাম জানান, ঝড়ের কবলে পড়ে তার ট্রলারসহ এলাকার ৮টি ট্রলার ডুবে ৬৫ জন জেলে নিখোঁজ হন। স্থানীয় ট্রলার মালিক সমিতির লোকজনসহ কয়েকটি ট্রলার নিয়ে এক সপ্তাহ ধরে তারা সাগরে নিখোঁজ জেলেদের সন্ধান করেছেন। ওই সময় তিন জেলের মরদেহ ও তিনজনকে জীবিত উদ্ধার করা গেলেও তার ট্রলারের ১৭ জেলেসহ অন্যদের সন্ধান পাওয়া যায়নি। তার ট্রলারসহ ১৭ জেলে নিখোঁজের ব্যাপারে বরগুনা সদর থানায় সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে।এছাড়া বিষয়টি কোস্টগার্ডকে জানানো হয়েছে বলে জানান তিনি।আবুল কালাম বলেন, ধারণা করা হচ্ছে নিখোঁজ জেলেরা আর বেঁচে নেই। তবে ভারতীয় নৌবাহিনী এবং ভারত ও বাংলাদেশের কোনো ট্রলারের জেলেরা নিখোঁজ কোনো জেলেকে উদ্ধার করেছে কি-না ট্রলার মালিক সমিতির পক্ষ থেকে সে বিষয়ে খোঁজ-খবর নেয়া হচ্ছে।
সংবাদদাতা/জিএম/ফোকাস বাংলা/১৭২৫ ঘ.

ঐতিহাসিক রোজ গার্ডেন কিনে নিচ্ছে সরকার
তদন্ত প্রতিবেদন পেলেই কয়লা কেলেঙ্কারির হোতাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা